ক্রেডিট কার্ডের সুদ ২০% এর বেশি নয়

বেশিরভাগ ব্যাংক তাদের ক্রেডিট কার্ডের সুদ ২৭% পর্যন্ত আরোপ করেছে। তবে নতুন এই নির্দেশনার পর ব্যাংকগুলো গ্রাহকদের কাছ থেকে ২০% এর বেশি সুদ নিতে পারবে না

ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকদের কাছ থেকে ২০% এর বেশি সুদ নিতে পারবে না বলে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করেছে। যা আগামী ১ অক্টোবর থেকে কার্যকর হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের ৩ আগস্ট ক্রেডিট কার্ড বিষয়ে একটি নীতিমালা জারি করেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। সেই নীতিমালার অনুসারে ক্রেডিট কার্ডের সুদের ব্যাংকের অন্য যে কোনো ঋণের সুদের হারের চেয়ে ৫% এর বেশি হবে না এবং এই সুদহার কেবল অপরিশোধিত বকেয়া স্থিতির ওপর প্রযোজ্য হবে। তবে সেই নীতিমালা লঙ্ঘন করে বেশিরভাগ ব্যাংক তাদের ক্রেডিট কার্ডের সুদ ২৭% পর্যন্ত আরোপ করেছে অভিযোগ রয়েছে।

নতুন জারিকৃত নির্দেশনায় বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে, ব্যাংকগুলো গ্রাহকদের কাছ থেকে ২০% এর বেশি সুদ নিতে পারবে না।

কোনো কোনো ব্যাংক ক্রেডিট কার্ডের পরিশোধ না করা বিলের ওপর লেনদেনের তারিখ থেকেই সুদ আরোপ করে বলেও অভিযোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে বিল পরিশোধের জন্য নির্ধারিত সর্বশেষ তারিখের পরের দিন থেকে কেবল অপরিশোধিত বিলের ওপর ওপর সুদ আরোপ করা যাবে।

এছাড়া কার্ডের মোট সীমার ৫০% এর বেশি নগদ উত্তোলন না করার নির্দেশনা থাকলেও অনেক ব্যাংক তা মানছে না। এক্ষেত্রে কোনো নামেই গ্রাহক মোট সীমার ৫০% এর বেশি নগদ উত্তোলন করতে পারবেন না।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মতে, নির্দিষ্ট তারিখের পর দেরিতে পরিশোধের জন্য ব্যাংকগুলো কেবল একবার বিলম্ব ফি নিতে পারবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, দেশের ৬০টি ব্যাংকের মধ্যে ৩৫টি ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ডের ব্যবসা রয়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত এই ব্যাংকগুলো মোট ১৫ লাখ ৫৬ হাজার ৪৪৮টি ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করেছে।