Thursday, February 29, 2024
EvalyInformationNews

কারামুক্তি পর প্রথম লাইভে আসছেন ইভ্যালির রাসেল

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ফেসবুক লাইভে আসার ঘোষণা দিয়েছেন। আগামী শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) রাত ৮টায় লাইভে আসবেন তিনি। এর আগে একই দিন ‘বিগ ব্যাং’ ক্যাম্পেইন চালুর ঘোষণা দিয়েছিলেন রাসেল।

শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ইভ্যালির ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়। এ ব্যাপারে ইভ্যালির গ্রাহকরা অনেকেই বলছেন, নতুন কোনো সুখবর দিতে লাইভে আসছেন তিনি।

এদিকে শনিবার (২২ ডিসেম্বর) সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ওয়ালে পোস্ট করেছেন রাসেল। ‘বিগ ব্যাং’ শিরোনামের পোস্টারের ক্যাপশনে লিখেছেন, কোনো সমস্যা বা দূরত্ব না থাকলে সম্পর্ক সবসময় মধুর হয়। গ্রাহকদের সেরা অফার দেওয়ার জন্য আমাদের সরবরাহকারীরা দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষা করছেন। আর এই দূরত্বটা শুধু ইভ্যালির ‘বিগ ব্যাং’ অফারের মাধ্যমে কমানো যাবে।

তিনি আরও লিখেছেন, একসঙ্গে আমরা ইতিহাস গড়ব ইনশাআল্লাহ। (এটা হবে) বিজয়ের ইতিহাস, অসম্ভবকে সম্ভব করার ইতিহাস।

ব্যাংকের চাকরি ছেড়ে ২০১৮ সালে ইভ্যালি প্রতিষ্ঠা করে হইচই ফেলে দেন মো. রাসেল। মাত্র দুই বছরের মধ্যে দেশের শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান হয়ে ওঠে ইভ্যালি। কিন্তু ঋণের বোঝাও বেড়ে যায় তাদের। অভিযোগ আছে, দেশি-বিদেশীয় কয়েকটি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠান মিলে ইভ্যালিকে থামানোর জন্য উঠেপড়ে লাগে। মোটা অঙ্কের বরাদ্দও করে তারা। একপর্যায় ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে গ্রেপ্তার করা হয় রাসেলকে।

 

কিন্তু রাসেলকে গ্রেপ্তারে হতাশ হন প্রতিষ্ঠানটির লাখ লাখ গ্রাহক। তারা ইভ্যালির ব্যবসা চালুর জন্য আন্দোলন শুরু করেন। রাসেলকে মুক্তি দিতে ২০ হাজারের বেশি ক্রেতা-বিক্রেতা আদালতের কাছে লিখিত আবেদন করেন। এর মধ্যে নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়েছেন রাসেল ও তার প্রতিষ্ঠান। সর্বশেষ গত ১৮ ডিসেম্বর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন তিনি। তবে তার স্ত্রী ও ইভ্যালির চেয়ারম্যান অনেক আগেই মুক্তি পেয়েছেন। জানা গেছে, মুক্তি পাওয়ার পর অফিস করতে শুরু করেছেন মো. রাসেল। ইতোমধ্যে তার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন বহু উদ্যোক্তা ও বিক্রেতা। ইভ্যালিকে নতুনভাবে ব্যবসা শুরু করতে এগিয়ে আসছেন তারা। কয়েকদিন ধরে ইভ্যালির অফিসে বিক্রেতাদের চলছে যাতায়াত।

Rate this post