শুভেচ্ছা বক্তব্যে ইভ্যালির শামীমা নাসরিন বলেন ‘আমরা হেরে যাই নাই’

শুভেচ্ছা বক্তব্যে ইভ্যালির শামীমা নাসরিন বলেন 'আমরা হেরে যাই নাই'

Evaly Customer’s l Official‘ টেলিগ্রাম গ্রুপে ইভ্যালির মার্চেন্ট ও গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য দিয়েছেন ইভ্যালির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন।

  তিনি মার্চেন্ট ও ভোক্তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘আমি আপনাদের ধন্যবাদ জানাই যারা আমার পাশে ছিলেন, ধন্যবাদ জানাই যারা ইভ্যালিকে শেষ হতে দেন নাই এখন পর্যন্ত। আপনারা জানেন ইভ্যালি বিষয় এখন মাননীয় হাইকোর্ট কৃতিক গঠিত কমিটি দেখছেন, তাই আমি এখন সব কিছু সরাসরি মন্তব্য করতে পারছিনা। তবে কমিটি এবং মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অনুযায়ী আমরা কাজ করবো। সেই অনুযায়ী ভবিষ্যতের পরিকল্পনা করবো কিভাবে কি করতে হবে। যেহেতু জেল থেকে মুক্তি পেয়েছি কিভাবে সবকিছু আবার নতুনভাবে শুরু করা যায় সেটার চেষ্টা করবো আমাদের সর্বোচ্চ শক্তি ও সামর্থ্য দিয়ে। যতদিন আমরা গ্রেপ্তার ছিলাম এই সময়ের খারাপ সময় গুলো আমরা ওভারকাম করতে পারবো। আপনারা যারা আমাদের সাথে ছিলেন, সময় দিয়েছেন, সুযোগ দিয়েছেন, আমাদের উপর বিশ্বাস রেখেছেন, আশা করি ভবিষ্যতে আরো কিছুটা সময় আমাদের সাথে থাকবেন যেন আমরা সবকিছু গুছিয়ে তুলতে পারি। আমরা মাননীয় হাইকোর্ট নির্দেশনা মেনে কিভাবে কি করা যায় তা নিয়েও আমরা কথা বলবো। আমি চেষ্টা করবো যত সম্ভব দ্রুত রাসেলকে(ইভ্যালি সিইও) জামিনে মুক্তি করানো যায়, তাকে নিয়ে ইভ্যালিকে পূনরায় চালু করা করতে চাই।

তিনি আরো বলেন, আমরা আবারও ঘুরে দাঁড়াবো, সব কিছু সুন্দর করে আবার গুছিয়ে তুলতে পারবো। এর মধ্যে অনেকটা সময় চলে গেছে, অনেক কিছুতে আমরা পিছিয়ে পড়েছি। এর মানে এই নয় যে আমরা হেরে গেছি। সে শক্তিটা আমাদের মাঝে আছে যে আমরা আবার ঘুরে দাঁড়াবো। আমরা হাইকোর্ট গঠিত কমিটি সাথে বসবো, আমাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলবো।

মোঃ ফয়সাল ইসলামের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, আমি শারীরিকভাবে মোটামুটি সুস্থ আছি, আলহামদুলিল্লাহ। আরেক প্রশ্নের উত্তরে তার ছেলে আয়ান নিয়ে বলেন, আমি আসার সাথে সাথে আয়ান আমাকে জড়িয়ে ধরে কান্না করেছে। সে আমাকে অনেক মিস করেছিল এবং আমাকে জিজ্ঞেস করেছে যে তুমি থাকবা না আবার চলে যাবা? সে আমাকে দেখে তার বাবাকে খুজতেছে। ঘুম থেকে উঠেও আমাকে দেখতেছে, আমি সাথে আছি কিনা।

মিটিং-এ ইভ্যালি মার্চেন্ট ও ভোক্তাদের সমন্বয়ক মোঃ নাসির উদ্দীন বলেন, আমরা ইভ্যালির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন মুক্তি করতে পেরেছি, জনাব রাসেলও মুক্তি করতে পারবো। তিনি বলেন, যারা ইতি মধ্যে ইভ্যালি সিইও ও চেয়ারম্যানের নামে মামলা করেছেন তারা যদি মামলা উঠিয়ে নেন তাহলে জনাব রাসেলের জামিন হতে সহজ হবে। তাছাড়া ইভ্যালিকে সাপোর্ট দেওয়ার জন্য সবার নিকট আহ্বান করেন।

Rate this post