ইভ্যালির সিইও ও চেয়ারম্যানের চার মামলা জামিন

ইভ্যালির সিইও ও চেয়ারম্যানের চার মামলা জামিন

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির সিইও মোহাম্মদ রাসেল ও চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন গ্রাহকের চার মামালা জামিন হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইভ্যালির আইনি দল।

ইভ্যালির আন্দোলন সমন্বয়ক মোঃ নাসির উদ্দিন এই বিষয় নিশ্চিত করেন। কোন কোন মামলা জামিন পেয়েছেন, এমন প্রশ্নে তিনি সরাসরি উত্তর দিতে চায় নাই। তবে তিনি বলেছেন, খুবই গুরুত্বপূর্ণ মামলা থেকে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী ও চেয়ারম্যান জামিন পেয়েছে। মামলা গুলা নিন্ম আদাল থেকে জামিন পেয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে ধারণা করা হচ্ছে গ্রাহকের করা কোন প্রতারণার মামলা ছিল। 

নাসির বলেন,  কৌশলগত কারণে মামলার বিবরণী এই মুহূর্তে উল্লেখ করতে চাচ্ছি না। ইতিপূর্বে জানেন একটা মামলা জামিন হয়েছে এবং আজকে নিম্ন আদালতে তিনটি (সর্ব মোট চারটি) মামলা জামিন হয়েছে। আমরা আশা করছি খুব সবগুলো মামলা খুব দ্রুত জামিন হবে। 

এই বিষয়ে ইভ্যালি ফ্যানস ক্লাবের এডমিন মোফতাছিম বিল্লাহ নাহিদ বলেন, আজকে ৩ টি মামলা জামিন হয়েছে তা নিশ্চিত। তিনি গ্রাহক ও মার্চেন্টের উদ্দেশ্য বলেন, যেহেতু মোট ৪ টা মামলা জামিন হয়েছে বাকিগুলো দ্রুত জামিন হবে, তাই গ্রাহক ও মার্চেন্ট সবাইকে ধৈর্য ধরতে হবে। নতুন করে কেউ আইনি পদক্ষেপ না নেওয়াটাই সবার জন্য মঙ্গল। জনাব রাসেল জামিনে মুক্তি পেয়ে আসলে সবার টাকা পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। যাদের চেক আছে কিংবা চেকের মেয়াদ শেষ সবাইকে নতুন চেক কিংবা মেয়েদ বাড়িয়ে দিবেন সিইও রাসেল, এমটা জানিয়েছেন ব্যারিস্টার নিঝুম মজুমদার।

মোট চার মামলা জামিনের বিষয় ইভ্যালির আইনি দলের সমন্বয়ক ব্যারিস্টার নিঝুম মজুমদারও নিশ্চিত করেন। আরো বলেন, খুব দ্রুত ইভ্যালির সিইও জামিনে মক্তি পেয়ে বাহিরে আসবেন।

ইভ্যালির সিইও ও চেয়ারম্যান নামে আনুমানিক মোট ৮ টি মামলা আছে। যার মধ্যে নিন্ম আদালতে মোট চার মামলা জামিন পেয়েছেন ও একটি মামলা উচ্চ আদালতে শুনানি অপেক্ষা আছে। তা ছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় চেক সংক্রান্ত মামলা আছে কিছু। উল্লেখ্য, প্রতারণার মাধ্যমে গ্রাহকের কাছ থেকে অর্থ-আত্মসাতের অভিযোগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে রাসেল ও শামীমাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর থেকে তারা কারাগারে আছেন।

Rate this post
%d bloggers like this: